পুলিশ সদস্যকে পেটালো রেলের নিরাপত্তা কর্মীরা, থানায় মামলা

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে পুলিশের এক কনস্টেবলকে বেধড়ক পিটিয়েছেন রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর (আরএনবি) সদস্যরা।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পুলিশ সদস্য বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) রাতে রাজশাহী রেলওয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এতে আরএনবির চার সদস্যসহ অজ্ঞাত আরও একজনকে আসামি করা হয়েছে।
মারধরের শিকার পুলিশ সদস্যের নাম রিয়াজ হাসান (৩৫)। তিনি রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত।

জানা যায়, গত বুধবার (৯ ডিসেম্বর) রাতে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে পুলিশ সদস্য রিয়াজ মারধরের শিকার হন। এরপর তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়ে বৃহস্পতিবার তিনি থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারভুক্ত চার আসামিরা হলেন- রাজশাহী আরএনবির নায়েক কাইয়ুম আলী, সিপাহী শাহিন আলম, মিজানুর রহমান ও বেলাল হোসেন। বর্তমানে তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলাচ্ছে জিআরপি থানা পুলিশ।

রাজশাহী জিআরপি (গভর্নমেন্ট রেলওয়ে পুলিশ) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল বাংলানিউজকে জানান, ঘটনার দিন রাতে পুলিশ কনস্টেবল রিয়াজের পাঁচজন আত্মীয় ট্রেনে রাজশাহী আসেন। কনস্টেবল রিয়াজ ও তার স্ত্রী তাদের স্টেশন থেকে আনতে গিয়েছিলেন। প্ল্যাটফর্ম থেকে ঘুরে আসার পথে আরএনবির সদস্যরা তাদের কাছে টিকিট দেখতে চান। তখন পাঁচ যাত্রীর টিকিট দেখানো হয়। কিন্তু পুলিশ কনস্টেবল রিয়াজ ও তার স্ত্রীর টিকিট না থাকার কারণে তাদের ধরে টিকিট কালেক্টরের (টিসি) কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন কনস্টেবল নিজের পরিচয় দিয়ে জানান, তিনি এবং তার স্ত্রী ট্রেনের যাত্রী ছিলেন না। তারা স্বজনদের নিতে স্টেশনে এসেছিলেন। এ কথা শোনার পর টিসি তাদের ছেড়ে দেন। কিন্তু টিসির কক্ষ থেকে বের হওয়ার পরই আরএনবির সদস্যরা কনস্টেবল রিয়াজকে মারধর শুরু করেন।

পরে অন্যান্য ট্রেনযাত্রীরা ও পুলিশ সদস্যরা রিয়াজকে সেখান থেকে উদ্ধার করেন। এরপর তাকে চিকিৎসার জন্য রামেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার রাতে রিয়াজ থানায় মামলা দায়ের করেন। তবে এখনও কোনো আসামিকে গ্রেফতার করা যায়নি। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান জিআরপি থানার ওসি শাহ কামাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *